মোবাইল ব্যাংকিংয়ে টাকা লেনদেন করেন ৭ কোটি গ্রাহক

দ্রুততম সময়ে টাকা পাঠানোর সুযোগ-সুবিধার কারণে দেশে মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় এসেছে বড় ধরনের পরিবর্তন। এর ফলে প্রতিদিনই বাড়ছে গ্রাহক, বাড়ছে লেনদেনের পরিমাণ। বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে গ্রাহক সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ কোটিতে। |আরো খবর বিকাশ–রকেটে ব্যালেন্স দেখতে খরচ দিতে হবে না গ্রাহকদের মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ব্যালেন্স দেখতেও খরচ লাগবে ঋণখেলাপি ও অর্থ পাচারকারীদের তালিকা চায় হাইকোর্ট কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, চলতি বছরের মে মাস শেষে দেশে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার আওতায় নিবন্ধিত গ্রাহকের সংখ্যা ৭ কোটি ৪ লাখ। একক মাস হিসাবে মে-তে লেনদেন হয়েছে ৪২ হাজার ২৩৬ কোটি টাকা। যা এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ লেনদেন। বর্তমানে ১৬টি ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং সেবা দিচ্ছে। যাদের নিবন্ধিত গ্রাহক সংখ্যা ৭ কোটি ৪ লাখ ৫৬ হাজার। ফেব্রুয়ারিতে গ্রাহক সংখ্যা ছিল ৬ কোটি ৮২ লাখ ৮২ হাজার। অর্থাৎ এক মাসে গ্রাহক বেড়েছে ৩ দশমিক ৩ শতাংশ। টানা তিন মাস একবারও লেনদেন করেনি এমন হিসাবকে নিষ্ক্রিয় হিসাব বলে গণ্য করে থাকে মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। সেই হিসাবে মে শেষে সক্রিয় গ্রাহক সংখ্যা ৩ কোটি ২১ লাখ ২৯ হাজার।

সূত্র আরও জানায়, মে মাসে সব ধরনের সেবায় লেনদেন বেড়েছে। এমএফএসে মে মাসে প্রতিদিন গড়ে ৭৪ লাখ ৬৩ হাজার লেনদেন হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রতিদিন গড়ে আদান-প্রদান হয়েছে এক হাজার ৩৬২ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। মে মাসে মোট লেনদেন হয়েছে ৪২ হাজার ২৩৬ কোটি টাকা, যা আগের মাসের চেয়ে ২০ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি। গত এপ্রিলে লেনদেন হয়েছিল ৩৪ হাজার ৯৭৫ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। আলোচিত সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৩১ হাজার ৩১২ জন। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, মোবাইল ব্যাংকিংয়ে শুধু লেনদেন নয়, যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন সেবা। বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানির বিল অর্থাৎ সেবামূল্য পরিশোধ, কেনাকাটার বিল পরিশোধ, বেতন-ভাতা প্রদান, বিদেশ থেকে টাকা পাঠানো অর্থাৎ রেমিট্যান্স প্রেরণ ইত্যাকার বিভিন্ন ক্ষেত্রে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা এখন পছন্দের মাধ্যম। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রতিবছরই ঈদ উৎসবকে কেন্দ্রে করে এমএফএসে এ লেনদেন বাড়ে। এবারের ঈদুল ফিতরেও লেনদেন ছিল বেশ ভালো। রমজানে মাস চলাকালে গত ১৯ মে (রোববার) মোবাইল ব্যাংকিংয়ের লেনদেন সীমা বাড়ানো হয়। তারপর থেকে লেনদেনের পরিমাণ আরও বেড়েছে। সব মিলিয়ে রেকর্ড পরিমাণ লেনদেন হয়েছে এ সেবায়। কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্র জানায়, মে মাসজুড়ে মোবাইল ব্যাংকিং হিসাবগুলোতে টাকা জমা পড়েছে ১৬ হাজার ২৯১ কোটি টাকা। তার বিপরীতে উত্তোলন হয় ১৫ হাজার ১৮০ কোটি টাকা। ব্যক্তি হিসাব থেকে ব্যক্তি হিসাবে অর্থ স্থানান্তর হয়েছে ৭ হাজার ৪৭১ কোটি টাকা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বেতন-ভাতা বিতরণ হয়েছে এক হাজার ২৪৩ কোটি টাকা। বিভিন্ন সেবার বিল পরিশোধ করা হয়েছে ৪৮২ কোটি ৯১ লাখ টাকা। কেনাকাটার বিল পরিশোধ করা হয়েছে ৬০৬ কোটি ৪১ লাখ টাকা। সরকারি পরিশোধ ৩২২ কোটি টাকা। অন্যান্য হিসাবে লেনদেন হয়েছে ৬১১ কোটি টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *